বঙ্গবন্ধুর সমাধীতে গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী শামীম আখতারের শ্রদ্ধা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধীতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন গণপূর্ত অধিদপ্তরের নব নিযুক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোহাম্মদ শামীম আখতার। ১৯ ডিসেম্বর দুপুর ১২টায় অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে তিনি বঙ্গবন্ধুর সমাধীতে পুস্পমাল্য অর্পণ করেন। পরে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের নিহত সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বঙ্গবন্ধু ভবনে রক্ষিত মন্তব্য বহিতে মন্তব্য লেখেন ও স্বাক্ষর করেন মোহাম্মদ শামীম আখতার। এরপর তিনি সমাধী সৌধ কমপ্লেক্স ঘুরে দেখেন। এসময় অধিদপ্তরের ঢাকা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোসলেহ উদ্দিন আহমেদ, ঢাকা মেট্রো জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী প্রদীপ কুমার বসু, গণপূর্ত ই/এম জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো: আলমগীর খান, গণপূর্ত ই/এম পি এ্যান্ড ডি জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আশ্রাফুল হক, খুলনা গণপূর্ত জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী ড. মো: মঈনুল ইসলাম, গোপালগঞ্জ গণপূর্ত জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো: আবুল খায়ের, বরিশাল গণপূর্ত জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো: নাছিম খান, গোপালগঞ্জ সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো: মশিউর রহমান, গোপালগঞ্জ গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী অমিত কুমার বিশ্বাসসহ ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও গোপালগঞ্জ গণপূর্ত জোন, সার্কেল এবং বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী, নির্বাহী প্রকৌশল ও উপ বিভাগীয় প্রকৌশলীগণ উপস্থিত ছিলেন।
হাউজিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক মোহাম্মদ শামিম আখতারকে গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী হিসেবে গত ১৩ জানুয়ারী নিয়োগ দেয় সরকার। একই সঙ্গে গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলীর দায়িত্বে থাকা আশরাফুল আলমকে হাউজিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক পদে প্রেষণে বদলী করে।

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের প্রশাসন অধিশাখা-১ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করার পর দিনই দায়িত্ব প্রহণ করেন নতুন প্রধান প্রকৌশলী। বিসিএস (পাবলিক ওয়ার্কস) ক্যাডারে ১৫ তম (১৯৯৫) ব্যাচের কর্মকর্তা মো, শামীম আকতার রাজশাহী জেলার বাঘা উপজেলায় এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। শিক্ষাজীবনে তিনি রাজশাহী ক্যাডেট কলেজ থেকে ১৯৮২ সালে এসএসসি এবং ১৯৮৪ সালে এইচএসসি পাস করেন। তিনি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) থেকে ১৯৯১ সালে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং (সিভিল) ডিগ্রি লাভ করেন। পরবর্তিতে তিনি আইসিটি বিষয়ে ২০০২ সালে বুয়েট হতে পোষ্ট গ্রাজুয়েট ডিপ্লোমা এবং ২০০৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে ফিন্যান্স বিষয়ে এমবিএ ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি ১৯৯৮ সালে উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, ২০০৮ সালে নির্বাহী প্রকৌশলী, ২০১৬ সালে তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ও ২০১৮ সালে অতিঃ প্রধান প্রকৌশলী পদে পদোন্নতি পান। গত ২০১৮ সাল থেকে হাউজিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউটের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। তিনি ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (ওঊই)- এর আজীবন ফেলো।

অন্যদিকে গণপূর্ত অধিদফতরের সাবেক প্রধান প্রকৌশলী এবং হাউজিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পাওয়া মো. আশরাফুল আলমও বিসিএস গণপূর্ত ক্যাডারের ১৫তম ব্যাচের কর্মকর্তা। তিনি ১৫তম ব্যাচের মেধা তালিকায় প্রথম স্থান অধিকারী। আশরাফুল আলম সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে ১৯৯৫ সালের ১৫ নভেম্বর চাকরিতে যোগদান করার পর তিনি ঝিনাইদহ জেলায় উপবিভাগীয় প্রকৌশলী, বগুড়া, রাজশাহী, শেরেবাংলা নগরে দায়িত্ব পালন করেছেন। নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে শেরেবাংলা নগর (ডিভিশন-১), গাইবান্ধা, জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ (ঢাকা-ডিভিশন-১), মেডিকেল ডিভিশনে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। এরপর তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী হিসেবে রক্ষণাবেক্ষণ সার্কেল ও অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী হিসেবে রংপুর জোনের দায়িত্ব পালনের পর অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলীর দায়িত্ব পেয়েছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email